1. ashik@amaderbanglarsangbad.com : Staf Reporter : Staf Reporter
  2. akhikbd@amaderbanglarsangbad.com : Ashikur Rahman : Ashikur Rahman
  3. babul6568@gmail.com : অনলাইন ডেক্স : অনলাইন ডেক্স
  4. admin@amaderbanglarsangbad.com : belal :
  5. lima@webcodelist.com : Khadizatul kobra Lima : Khadizatul kobra Lima
  6. rkp.jahan@gmail.com : Staf Reporter : Staf Reporter
  7. abc@solarzonebd.com : Staf Reporter : Staf Reporter
  8. tahershaghata@gmail.com : Abu Taher : Abu Taher
ফুলছড়ি কাবিলপুর চরের তিনশ’ পরিবার পেল ফুডব্যাংকের উদ্যোগে এক কেজি করে মাংস - আমাদের বাংলার সংবাদ




ফুলছড়ি কাবিলপুর চরের তিনশ’ পরিবার পেল ফুডব্যাংকের উদ্যোগে এক কেজি করে মাংস

  • সংবাদ সময় : Sunday, 2 August, 2020
  • ১০০ বার দেখা হয়েছে
জামিরুল ইসলাম সম্রাট ফুলছড়ি (গাইবান্ধা) থেকে।
গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলার কাবিলপুর চরের মানুষের সাথে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে ফুলছড়ি ফুডব্যাংক উদ্যোগে ফুলছড়ি ভলান্টিয়ার্স গ্রুপের সদস্যদের মাধ্যমে তিনশ’ পরিবারকে এক কেজি করে মাংস বিতরণ করা হয়েছে। গাইবান্ধা জেলা প্রশাসক আবদুল মতিন ও ফুলছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু রায়হান দোলন ২ আগস্ট রোববার কাবিলপুর চরে গিয়ে স্বেচ্ছাসেবকদের মাধ্যমে বানভাসীদের এসব মাংস পৌঁছে দেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন, ফুলছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কাওছার আলী, মেডিকেল অফিসার ইলতুতমিশ পিন্টু, স্থানীয় সমাজ সেবক প্রভাষক গোলাম মোস্তফা কামাল পাশা, স্থানীয় ইউপি সদস্য সাদেক খান, ফুলছড়ি ভলান্টিয়ার্স গ্রুপের আহবায়ক আশিকুর রহমান মুন প্রমুখ।
তিন দফার বন্যায় কাবিলপুর চরের মানুষগুলোর এখন ত্রাহি ত্রাহি অবস্থা। খেটে খাওয়া শ্রমজীবি মানুষগুলো হয়েছে কর্মহীন। প্রান্তিক চাষিদের নেই আয়-রোজগার। সরকারের পক্ষ থেকে কিছুটা ত্রাণ সহায়তা দেয়া হলেও তা অপ্রতুল। নানা সমস্যা ও দুর্দশার শিকার কাবিলপুর চরের সাড়ে ৫শ’ পরিবার। তাই ঈদ তাদের জন্য সব সময়ই স্বপ্নের মতো। কুরবানির ঈদ হলেও তারা মাংস পায়নি। এ গ্রামের মানুষগুলোর মাঝে ছিল না ঈদের আনন্দ। ভাগ্যের নির্মম পরিহাসে তারা ঈদের আনন্দ বঞ্চিত। ঈদের দিন ভাল কিছু খেতে পর্যন্ত পারেন না তারা। গত কয়েক বছর কোরবানির ঈদে তাদের ভাগ্যে এক টুকরো মাংস পর্যন্ত জোটেনি। এ চরে কোরবানি দেওয়ার মতো সামর্থ্যবান লোক নেই বললেই চলে।যারা আছে তারা বন্যা ও নদী ভাঙনের কষাঘাতে অনেকটা নিরুপায়। এনিয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হলে বিষয়টি নজরে আসে ফুলছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু রায়হান দোলন এর। এমন অবস্থায় করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় গঠিত ফুলছড়ি ফুডব্যাংকের উদ্যোগে ফুলছড়ি ভলান্টিয়ার্সের মাধ্যমে ফুলছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু রায়হান দোলন ওই চরের পরিবারগুলোকে মাংস পৌঁছে দেয়ার জন্য বিত্তবানদের সহযোগিতা কামনা করেন। তার আহবানে সারা দিয়ে অনেকে ফুলছড়ি ফুডব্যাংকে সহযোগিতা করেন। বিত্তবানদের সহায়তায় ওই চরের অতি দরিদ্র তিনশ পরিবারকে বাছাই এক কেজি করে মাংস বিতরন করা হলো। এছাড়া উড়িয়া ইউনিয়নের বাসিন্দা সমাজসেবক প্রভাষক গোলাম মোস্তফা কামাল পাশা ব্যক্তিগত উদ্যোগে ঈদের দিন ওই চরের পার্শ্ববর্তী রতনপুরের শাপলা বাজার এলাকার ১৫০টি পরিবারকে এক কেজি করে মাংস বিতরন করেন। তিনি বলেন, ঈদের দিন তার আত্মীয় স্বজনের করা কুরবানির মাংস চেয়ে এনে এবং নিজের করা কুরবানির মাংস থেকে ১৫০টি পরিবারকে কুরবানির মাংস পৌঁছে দিয়েছি।
ফুলছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু রায়হান দোলন বলেন, বিত্তবানদের সহায়তায় ফুলছড়ি ফুডব্যাংক থেকে ওই গ্রামের সাড়ে পাঁচশ পরিবারের মধ্যে বাছাই করে তিনশ পরিবারের মাঝে আমরা এক কেজি করে গরুর মাংস বিতরনের ব্যবস্থা করেছি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ধরনের আরো সংবাদ