1. ashik@amaderbanglarsangbad.com : Staf Reporter : Staf Reporter
  2. akhikbd@amaderbanglarsangbad.com : Ashikur Rahman : Ashikur Rahman
  3. babul6568@gmail.com : অনলাইন ডেক্স : অনলাইন ডেক্স
  4. admin@amaderbanglarsangbad.com : belal :
  5. sv.e.t.a.m.ahovits.k.aya.8.2@gmail.com : danniellearchdal :
  6. lima@webcodelist.com : Khadizatul kobra Lima : Khadizatul kobra Lima
  7. rkp.jahan@gmail.com : Staf Reporter : Staf Reporter
  8. abc@solarzonebd.com : Staf Reporter : Staf Reporter
  9. tahershaghata@gmail.com : Abu Taher : Abu Taher
গাইবান্ধার তুলসীঘাটে অত্যাচারী শাহজালাল কর্তৃক তান্ডব অন্ধ মা ও বোনের বাড়ী যাতায়াতের রাস্তা টিনের বেড়া দিয়ে প্রতিবন্ধকতা - আমাদের বাংলার সংবাদ




গাইবান্ধার তুলসীঘাটে অত্যাচারী শাহজালাল কর্তৃক তান্ডব অন্ধ মা ও বোনের বাড়ী যাতায়াতের রাস্তা টিনের বেড়া দিয়ে প্রতিবন্ধকতা

  • সংবাদ সময় : Saturday, 14 November, 2020
  • ৭৬ বার দেখা হয়েছে

 

এরশাদ আলমঃ গাইবান্ধার তুলসীঘাটে অত্যাচারী শাহজালাল কর্তৃক তান্ডব অন্ধ মা ও ছোট বোনের বাড়ী যাতায়াতের দীর্ঘদিনের ৪ফিট ইজমাইলী রাস্তার মধ্যে ৩ফিট রাস্তা জোড় পূর্বক দখল করে টিনের বেড়া দিয়ে ঘিরে নিয়েছে পুত্র শাহজালাল। এই রাস্তার বিষয়কে কেন্দ্র করে প্রতিকারের আসায় অন্ধ মা মোছাঃ মনোয়ারা বেওয়া ও ছোট বোন উম্মে হাবিবা হ্যাপী তাহারা পৃথক পৃথক ভাবে থানায় অভিযোগ দায়ের করে। এদিকে উক্ত অভিযোগ গুলি তদন্ত হলেও বর্তমানে নিস্ক্রিয় অবস্থায় রয়েছে। এর ফলে মনোয়ারা বেওয়া ও উম্মে হাবিবা পরিবার বর্গরা খুব কষ্টে ওই ১ফুট চিপা রাস্তা দিয়ে যাতায়াত করছে। বর্তমানে তাহার চরম মানবেতর জীবন যাপন করছে। বড় ভাইদের এমন জুলুম অত্যাচারে ছোট বোন হাবিবা হতাশা গ্রস্থ হয়ে পড়েছে।

 

 

জানা গেছে, গাইবান্ধা সদর উপজেলার সাহাপাড়া ইউনিয়নে তুলসীঘাট বন্দরে বাজার সংলগ্ন প্রবিন বাসিন্দা মৃত কফিল উদ্দীন এর তিন পুত্রের মধ্যে দুই পুত্র একজন ফারুকী আজম পেশায় গ্রামীণ ব্যাংক ব্রাঞ্চ ম্যানেজার ও অপরজন বাংলাদেশ নৌবাহিনী সদস্য এই দুই ভাই অন্ধ মা ও বোন উম্মে হাবিবা মৃত কফিল উদ্দিনের বাস্তভিটায় দীর্ঘদিন থেকে বসবাস করে আসছে। ছোট বোন উম্মে হাবিবা বিবাহের পর থেকে স্বামী সংসার ও অন্ধ মা কে নিজের সংসারে নিয়ে পিতার বাস্তভিটায় প্রায় ২০ বৎসর হতে বসবাস করে আসিতেছে।

 

এদিকে ওই চাকুরীজীবি দুই ভাই তারা উভয় যোগসাজশে ছোট বোনকে উচ্ছেদ করার নির্মিত্তে ষড়যন্ত্র জালপাতে। ছোট বোন উম্মে হাবিবাকে কিভাবে পিতার বাস্তভিটা থেকে উচ্ছেদ করা যায় এই ফন্দিতে বড় ভাই ফারুকী আজম ও শাহজালাল এরা দুইজন ফুষে ওঠে।

 

 

 

ওই ষড়যন্ত্রের জের ধরে ছোট বোন ও তার পরিবার বর্গকে বিভিন্ন পার্শ্বে হয়রানীর পায়তারা করিয়া আসিতেছে। একপর্যায়ে আজ থেকে ৪০বৎসর পূর্বে মৃত কফিল উদ্দীন তিনি জীবত থাকায় সকলের যাতায়াতের জন্য ১শতক জমি রাস্তার জন্য আলাদা করে রেখে ছিলেন। কিন্তু এখন সেই রাস্তার জমি ৪ফিটের মধ্যে ৩ফিট জমি জোড় পূর্বক শাহজালাল দখল করে টিনের বেড়া দিয়ে ঘিরে নিয়েছে। যাতে করে পিছনে বসবাসকারী ছোট বোন উম্মে হাবিবা পরিবার বর্গ অসুবিধায় পরে যাতে অন্যত্র সটকে পরে।

 

 

উল্লেখ্য এলাকাবাসী ও শাহজালালের ছোট ভাই রানা সে জানায় আমার অংশের প্রায় ১শতাংশ জমি জোড় পূর্বক দখল করে নিয়ে তার জমির সাথে লাগিয়ে ইহাতে বহুতল ভবন নির্মাণ করেন।

 

 

 

ওই বহুতল বিল্ডিং নির্মাণ করার ফলে রানার ৫ইঞ্চি ওয়ালের বাড়ী ঘরে ফাটল ধরে এ ব্যাপারে ও বড় ভাই শাহজালালের বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আদালতে খাস দখলে মামলা করেছে। অপর দিকে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী মনোয়া বেওয়া জানায় তিনি প্রায় ২০ বৎসর হতে পুত্রদের কাছ থেকে কোন ভরণ পোষণ না পাওয়া সে ছোট মেয়ে উম্মে হাবিবা সংসারে ভরণ পোষণ জীবন জীবিকা নির্বাহ করে আসিতেছে। তিনি আরও জানান আমার মেয়ে ও জামাই কোন সময় ও দিনের তরে আমাকে কখনও মনে কষ্ট দেয়া কাজ করে নাই। দৃষ্টি প্রতিবন্ধী বয়স বৃদ্ধা মোছাঃ মনোয়ারা বেওয়া উক্ত জুলুম অনিয়ম অত্যাচারী পুত্রদের কবল থেকে মুক্তি পাওয়ার দাবী জানায়।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ধরনের আরো সংবাদ