1. ashik@amaderbanglarsangbad.com : Staf Reporter : Staf Reporter
  2. akhikbd@amaderbanglarsangbad.com : Ashikur Rahman : Ashikur Rahman
  3. babul6568@gmail.com : অনলাইন ডেক্স : অনলাইন ডেক্স
  4. kip.o.niom@gmail.com : beatris01l :
  5. admin@amaderbanglarsangbad.com : belal :
  6. free-centre@rcnika.biz.ua : Carlosvb :
  7. listlistov999@gmail.com : clarencekempton :
  8. sv.e.t.a.m.ahovits.k.aya.8.2@gmail.com : danniellearchdal :
  9. listlistov444@gmail.com : edenrankin :
  10. sv.e.ta.m.ah.ov.i.tsk.a.y.a82@gmail.com : kimberleybogan9 :
  11. politika.video1@gmail.com : kristinstonham :
  12. lima@webcodelist.com : Khadizatul kobra Lima : Khadizatul kobra Lima
  13. autumn570578@gmail.com : micheallangley :
  14. rkp.jahan@gmail.com : Staf Reporter : Staf Reporter
  15. nimushamim46@gmail.com : Shamim Nimu : Shamim Nimu
  16. abc@solarzonebd.com : Staf Reporter : Staf Reporter
  17. tahershaghata@gmail.com : Abu Taher : Abu Taher
  18. k.ip.on.i.o.m@gmail.com : tiffanyreiniger :
এবারও ‘ঘোষিত তারিখে’ খুলছে না শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান!




এবারও ‘ঘোষিত তারিখে’ খুলছে না শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান!

  • সংবাদ সময় : Wednesday, 28 April, 2021
  • ২১ বার দেখা হয়েছে
এবারও ‘ঘোষিত তারিখে’ খুলছে না শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান!

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের জন্য দেশে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ আছে এক বছরেরও বেশি সময় ধরে। মাঝে ভাইরাসটির উপদ্রব কমে যাওয়ায় শিক্ষার্থীদের দাবির মুখে আগামী ২৩ মে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। তবে সংক্রমণ পরিস্থিতি এখন যে অবস্থায় আছে, তাতে এই নির্ধারিত তারিখেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সংক্রমণ পরিস্থিতির যে অবনতি হয়েছে তাতে করে নির্ধারিত তারিখ অনুযায়ী আর মাত্র ২৫ দিন পর (২৩ মে) শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া প্রায় অসম্ভব। এ নিয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে এখনই বিকল্প ভেবে রাখতে হবে।

করোনাভাইরাসের চলমান দ্বিতীয় ঢেউ প্রথমটির চেয়ে অনেক মারাত্মকভাবে ছড়িয়ে পড়েছে। মৃত্যুর সংখ্যা ছাড়িয়েছে শতক। সংক্রমণের দিক থেকেও রেকর্ড ভেঙেছে।

নির্ধারিত তারিখ অনুযায়ী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার ক্ষেত্রে আরও বড় বাধা হলো- সিদ্ধান্ত অনুযায়ী দেশের সব শিক্ষক-কর্মচারী এবং বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের টিকার আওতায় আনা সম্ভব হচ্ছে না।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছিল, ২৩ মে’র আগে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর যেসব শিক্ষার্থীরা হলে থাকেন তাদের প্রত্যেককে টিকার আওতায় আনা হবে। সেই কর্মসূচি এখনো শুরুই হয়নি। ওদিকে দেশে করোনার টিকার সঙ্কটের কারণে ইতোমধ্যে প্রথম ডোজ দেওয়া বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

তার অর্থ, নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের লাখো শিক্ষার্থীকে ভ্যাকসিনের আওতায় আনা যাচ্ছে না।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন বলেন, ভাইরাসটির সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী। এ অবস্থায় নির্ধারিত তারিখ ২৩ মে’র মধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা সম্ভব হবে বলে মনে হচ্ছে না। তবে এ নিয়ে মন্ত্রণালয়ে এখনও কোনো আলোচনা হয়নি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ধরনের আরো সংবাদ